সংবাদ শিরোনাম :
সিলেটের জৈন্তাপুরে পরকীয়ার জেরে প্রবাসী স্বামীকে হত্যার চেষ্টা, প্রেমিকসহ স্ত্রী আটক

সিলেটের জৈন্তাপুরে পরকীয়ার জেরে প্রবাসী স্বামীকে হত্যার চেষ্টা, প্রেমিকসহ স্ত্রী আটক

 

এ এ রানা::
প্রেমের মরা জলে ডুবেনা। প্রেম ভালোবাসার জন্য যেমন জীবন দিতে পারে, ঠিক তেমনি ভালোবাসার মানুষকে পাওয়ার জন্য পথের কাটা সড়াতে আরেকজনকে হত্যা করতেও পিছপা হয়না,তেমনি এক ঘটনার শিকার জৈন্তার মিনহাজ। তবে ভাগ্যে ভালো তার তিনি এখনো বেচেঁ আছেন।

সিলেটের জৈন্তাপুরে পরকীয়ার জেরে প্রবাসী স্বামীকে শ্বাসরোধ করে হত্যা চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় প্রেমিকসহ স্ত্রীকে আটক করেছে পুলিশ। আটক দুইজন হলে প্রবাসীর স্ত্রী জৈন্তাপুর উপজেলার হরিপুর এলাকার মো. আব্দুল্লাহর মেয়ে মনিরা বেগম (২২) ও প্রেমিক একই উপজেলার মৃত ফরিদ মিয়ার ছেলে ফেরদৌস রহমান চৌধুরী (২৫)।

শুক্রবার (১৫ সেপ্টেম্বর) ভোর রাতে জৈন্তাপুর উপজেলার ঘাটের চটি গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটে। এ ঘটনায় আহত কুয়েত প্রবাসী মিনহাজ উদ্দিন (৩১) সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন। তিনি জৈন্তাপুর উপজেলার ঘাটের চটি গ্রামের নূর মিয়ার ছেলে।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, প্রবাসী মিনহাজ উদ্দিন কুয়েত থাকা অবস্থায় তার স্ত্রী বাবার বাড়িতে থাকতেন, সেখানে ফেরদৌসের সাথে পরকীয়ায় সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন তিনি। কিছুদিন আগে মিনহাজ দেশে ফেরেন। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে নিজেদের কক্ষে ঘুমাতে যান স্বামী-স্ত্রী। গভীর রাতে ফেরদৌস তাদের ঘরে প্রবেশ করলে প্রেমিক আর স্ত্রীকে অপ্রীতিকর অবস্থায় দেখতে পান মিনহাজ। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে মিনহাজ উদ্দিনকে শ্বাসরোধ করে হত্যার চেষ্টা চালায় তারা। শব্দ শুনে পাশের ঘরে থাকা তার ভাই আর বাবা মিনহাজ উদ্দিনকে উদ্ধার করে প্রেমিকসহ স্ত্রীকে আটক করে। খবর পেয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে দুজনকে আটক করে থানা নিয়ে আসে।

জৈন্তাপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তাজুল ইসলাম পিপিএম জানান, এঘটনায় প্রবাসীর বাবা নূর মিয়া বাদি হয়ে শুক্রবার দুপুরে দুজনকে আসামি করে জৈন্তাপুর থানায় মামলা দায়ের করেন। তাদেরকে আজ আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। আহত কুয়েত প্রবাসী মিনহাজ উদ্দিন সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন :





© All rights reserved © 2021 Holysylhet