সংবাদ শিরোনাম :
বড়লেখায় ৪ ছিন্তাইকারী গ্রেপ্তার, ছিন্তাইকৃত সিএনজি ও টাকা উদ্ধার বিশ্ব বন্যপ্রাণী দিবস উপলক্ষে লাউয়াছড়ায় পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা অভিযান লাউয়াছড়া উদ্যানে জিপ উল্টে নৃত্য শিল্পীসহ আহত ৭ বাংলাদেশ উন্নয়ন ও সমৃদ্ধির পথে এগিয়ে যাচ্ছে : মেয়র আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী কুলাউড়ায় নববধুকে হত্যার অভিযোগে স্বামী ও ভাবী আটক সিলেট কিনব্রিজের নিচে সাইনবোর্ডে ঝুলন্ত যুবকের লাশ! শ্রীমঙ্গলে জগদ্বন্ধু আশ্রমের উদ্বোধন লক্ষাধিক পূণ্যার্থীর আগমন মৌলভীবাজারে ডিবি পুলিশের অভিযানে ইয়াবাসহ আটক ১ শ্রীমঙ্গলে শ্রী শ্রী প্রভু জগদ্বন্ধু আশ্রমের দ্বারোদঘাটন উৎসব, নগর সংকীর্তন ও শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত শ্রীমঙ্গলে দ্বার উদঘাটন হলো বাংলাদেশে প্রথম শ্রীশ্রী প্রভু জগদ্ববন্ধু আশ্রম ও মিশনের
মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটিতে জাতীয় শোক দিবস পালিত

মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটিতে জাতীয় শোক দিবস পালিত

নিজস্ব প্রতিবেদক ঃ
জাতীয় শোক দিবসের মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটির ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোহাম্মদ জহিরুল হক বলেছেন, “বঙ্গবন্ধুকে দৈহিকভাবে হত্যা করা হলেও তাঁর মৃত্যু নেই। তিনি চিরঞ্জীব। কেননা একটি জাতিরাষ্ট্রের স্বপ্নদ্রষ্টা এবং স্থপতি তিনিই। যতদিন এ রাষ্ট্র থাকবে, ততদিন অমর তিনি। সমগ্র জাতিকে তিনি বাঙালি জাতীয়তাবাদের প্রেরণায় প্রস্তুত করেছিলেন ঔপনিবেশিক শাসক-শোষক পাকবাহিনীর বিরুদ্ধে সশস্ত্র সংগ্রামে ঝাঁপিয়ে পড়তে। তাই তিনি এ জাতির চেতনায় চিরঞ্জীব। বঙ্গবন্ধু কেবল একজন ব্যক্তি নন, এক মহান আদর্শের নাম। বঙ্গবন্ধুর দূরদর্শি আদর্শ বাস্তবায়নই এগিয়ে নিয়ে যেতে পারে বাংলাদেশকে।” আজ ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস পালন উপলক্ষ্যে মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটি আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি উপর্যুক্ত কথাগুলো বলেন । সকাল দশটায় প্রফেসর এম. হাবিবুর রহমান হলে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি ও মূথ্য আলোচক ছিলেন ট্রেজারার এবং মানবিক ও সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. সুরেশ রঞ্জন বসাক ।
জাতীয় শোক দিবস ২০২৩ পালন কমিটির আহ্বায়ক ইউনিভার্সিটির ব্যবসা ও অর্থনীতি অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. মো. তাহের বিল্লাল খলিফার সভাপতিত্বে ও রেজিস্ট্রার তারেক ইসলামের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন ইউনিভার্সিটির প্রক্টর, অর্থনীতি বিভাগের প্রধান ও জাতীয় শোক দিবস ২০২৩ পালন কমিটির সদস্য সচিব প্রফেসর ড. মোহাম্মদ জামাল উদ্দিন। আরও বক্তব্য রাখেন বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. মো. নজরুল হক চৌধুরী, আইন অনুষদের ভারপ্রাপ্ত ডিন সহযোগী অধ্যাপক শেখ আশরাফুর রহমান, ছাত্রকল্যাণ উপদেষ্টা আইন ও বিচার বিভাগের সহযোগী অ্ধ্যাপক ড. এম জেড আশরাফুল, ডেপুটি রেজিস্ট্রার মিহিরকান্তি চৌধুরী, ব্যবসা প্রশাসন বিভাগের ৫৯তম ব্যাচের ছাত্রী সালমা শোভা আনিকা প্রমূখ।
যথাযোগ্য মর্যাদায় বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণের মধ্য দিয়ে মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটি দিবসটি পালন করেছে। ইউনিভার্সিটির জনসংযোগ দফতর থেকে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। সকাল নয়টায় বটেশ্বর স্থায়ী ক্যাম্পাসে জাতীয় পতাকা পতাকা ও কালো পতাকা উত্তোলন করেন যথাক্রমে ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোহাম্মদ জহিরুল হক ও ট্রেজারার এবং মানবিক ও সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. সুরেশ রঞ্জন বসাক । সকাল সোয়া নয়টায় ইউনিভার্সিটির স্থায়ী ক্যাম্পাসে ভাইস চ্যান্সেলরের নেতৃত্বে ছাত্রছাত্রী, শিক্ষক, কর্মকর্তা, কর্মচারীবৃন্দ জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন । জাতীয় শোক দিবস পালন উপলক্ষ্যে শিক্ষার্থীদের মধ্যে কবিতা আবৃত্তি, পোস্টার ও তথ্য চিত্র প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা সভা শেষে প্রতিযোগিতায় বিজয়ী শিক্ষার্থীদের হাতে তুলে দেন প্রধান অতিথিসহ অন্য অতিথিবৃন্দ।
বিশেষ অতিথি ও মুখ্য আলোচকের বক্তব্যে ট্রেজারার এবং মানবিক ও সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. সুরেশ রঞ্জন বসাক বলেন, “বাংলাদেশের স্থপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অসামান্য অবদান রয়েছে শুধু বাংলাদেশের জন্য নয়, বিশ্বমানবের মুক্তির জন্য। রাষ্ট্রীয় ও আন্তরাষ্ট্রীয় পরিমণ্ডলে তিনি অনেক চ্যালেঞ্জের মোকাবেলা করেছিলেন। মাত্র সাড়ে তিন বছরের সময়কালে যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশের রাজনৈতিক, কূটনৈতিক ও অর্থনৈতিক পুনর্গঠনে নিরলস কাজ করে গেছেন। দুর্ভিক্ষপীড়িত, কোষাগার শূন্য পরিবেশে নানা রাজনৈতিক চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন হন। যে মর্মান্তিকভাবে তাঁর মৃত্যু হয়েছে তার নজির নেই পৃথিবীর ইতিহাসে। আমি তাঁর স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করি।”
অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন বিভিন্ন বিভাগের প্রধান ও শিক্ষকবৃন্দ, আইকিউএসির অতিরিক্ত পরিচালক (ইটিএল) ও ইংরেজি বিভাগের প্রধান সহযোগী অধ্যাপক ড. রমা ইসলাম, পরিচালক (অর্থ) মো. ইনামুল হক, ডেপুটি লাইব্রেরিয়ান মাশরুফ আহমেদ চৌধুরীসহ অন্য কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ।

সংবাদটি শেয়ার করুন :





© All rights reserved © 2021 Holysylhet