সংবাদ শিরোনাম :
জৈন্তাপুরের হরিপুর বাজারে চলছে প্রশাসনের নামে লাখ লাখ টাকা চাঁদা আদায় বাণিজ্য! বড়লেখায় ৪ ছিন্তাইকারী গ্রেপ্তার, ছিন্তাইকৃত সিএনজি ও টাকা উদ্ধার বিশ্ব বন্যপ্রাণী দিবস উপলক্ষে লাউয়াছড়ায় পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা অভিযান লাউয়াছড়া উদ্যানে জিপ উল্টে নৃত্য শিল্পীসহ আহত ৭ বাংলাদেশ উন্নয়ন ও সমৃদ্ধির পথে এগিয়ে যাচ্ছে : মেয়র আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী কুলাউড়ায় নববধুকে হত্যার অভিযোগে স্বামী ও ভাবী আটক সিলেট কিনব্রিজের নিচে সাইনবোর্ডে ঝুলন্ত যুবকের লাশ! শ্রীমঙ্গলে জগদ্বন্ধু আশ্রমের উদ্বোধন লক্ষাধিক পূণ্যার্থীর আগমন মৌলভীবাজারে ডিবি পুলিশের অভিযানে ইয়াবাসহ আটক ১ শ্রীমঙ্গলে শ্রী শ্রী প্রভু জগদ্বন্ধু আশ্রমের দ্বারোদঘাটন উৎসব, নগর সংকীর্তন ও শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত
রাজনগরে ফের অভিনব প্রতারনায় মহিলার কাছ থেকে টাকা হাতিয়ে নেয়ার ঘটনা

রাজনগরে ফের অভিনব প্রতারনায় মহিলার কাছ থেকে টাকা হাতিয়ে নেয়ার ঘটনা

 

মৌলভীবাজার প্রতিনিধি

মৌলভীবাজারের রাজনগর উপজেলায় পাঁচ দিনের ব্যাবধানে আবারও মহিলার কাছ থেকে অভিনব প্রতারণায় টাকা হাতিয়ে নেয়ার ঘটনা ঘটেছে।

১৪ মার্চ ( মঙ্গলবার)  দুপুরে সদর ইউনিয়নের গ্রাম রাজনগর গ্রামের সফর মিয়ার স্ত্রী পারভীন বেগম (৪৪) ভাসুরের ছেলে ওমান থেকে পাঠানো ৭০ হাজার টাকা ইসলামী ব্যাংক রাজনগর শাখা থেকে তুলেন। টাকা নিয়ে ব্যংকের নিচে আসতেই  দুইজন ব্যক্তি পারভীন বেগমের সাথে কথা বলে এবং কোশল বিনিময় করে। কিছু সময় পর পারভীন ব্যাগের ভেতর রাখা টাকা থেকে ৫০ হাজার টাকা নেই দেখে তিনি বাকরুদ্ধ হয়ে পড়েন। কান্না আর বিলাপ করতে থাকেন। বারবার বলতে থাকেন যে অন্যের কাছ থেকে হাওলাতি টাকা এনেছিলেন আর এই টাকা তুলে দিলেন প্রতারকের হাতে। টাকা হারিয়ে পাগল প্রায় গ্রামের সহজসরল পারভীন বেগমের সাথে কথা বলে ঘটনার বিস্তারিত জানা যায়নি তবে ব্যাংকের  ওপজিট পাশে নিচ তলায়  রাজমহল সুইটস এন্ড ফায়ার ফুডের দোকানে লাগানো সিসি ক্যামেরা খোজে দেখা যায় দুইজন ব্যাক্তি সাথে ওই মহিলার দীর্ঘ সময় কথা হয় এবং টাকা লেনদেন হতেও দেখা যায়। ধারনা করা যাচ্ছে প্রতারকের  প্রলোভনে পড়ে ওই মহিলা টাকা গুলি তুলে দিয়েছেন। এদিকে ৯ মার্চ একই উপজেলার দক্ষিণ খারপাড়া গ্রামের  খেলা বেগম (৫০) সৌদিআরব থেকে ছেলের পাঠানো ২৮ হাজার টাকা সোনালী ব্যাংক রাজনগর শাখা থেকে তুলে ব্যাংকের নিচে আসা মাত্র এক ব্যাক্তি প্রতারণা করে টাকা হাতিয়ে নিয়েছে। গ্রামের সহজসরল খেলা বেগম বলেন আমি টাকা নিয়ে ব্যংকের নিচে আসতেই এক ব্যক্তি আমার সাথে কথা বলে কোশল বিনিময় করে। এসময় সে তার আধ্যাত্বিকতার কথাও বলে সে যে টাকায় ফু দিলেই দ্বীগুণ হয়ে যায় টাকা। এ ভাবে সে অনেকের টাকা দ্বিগুন করে দিয়েছে। তিনি প্রতারকের প্রলোভনে  পড়ে তার কথায় রাজি হয়ে। নিজের ছেলের কষ্টের রোজগার করা টাকার ব্যাগ  তুলেদেন ওই প্রতারকের হতে। প্রতারক টাকার ব্যগে ফু দিয়ে খেলা বেগমকে বাড়িতে চলে যেতে বলে। আর বলে দেয় বাড়ি না গিয়ে যেন ব্যাগটি  না খুলেন। তার কথায় বিশ্বাস রেখে বাড়িতে এসে খুলেন টাকার ব্যাগটি। এতে দেখতে পান টাকা দ্বীগুণ হওয়া দূরের কথা মূল টাকাই তো ব্যগে নেই। বিষয়টি দেখে খেলা বেগম বাকরুদ্ধ হয়ে পড়েন। কান্না আর বিলাপ করতে থাকেন। বারবার বলতে থাকেন যে ছেলের কষ্টের রোজগার করা টাকা তুলে দিলেন প্রতারকের হাতে। খেলা বেগমের দেবর খালেছ মিয়া বলেন, টাকা দ্বীগুন করে দেয়ার লোভ দেখিয়ে প্রতারক টাকা নিয়ে গেছে। তারা বিষয়টি রাজনগর সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যানকে জানিয়েছেন। এ ব্যাপারে রাজনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বিনয় ভুষন রায় বলেন, ঘটনা শুনিনি।  জানার পর দেখব।

 

সংবাদটি শেয়ার করুন :





© All rights reserved © 2021 Holysylhet