সংবাদ শিরোনাম :
ছাতকে ভারতীয় চিনি বোঝাই ট্রাক সহ আটক ১ ছাতকে ভূমিহীন-গৃহহীন ৬৮টি পরিবার পেয়েছে প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর ছাতক পৌরসভায় টিএলসিসি’র বিশেষ সভা অনুষ্ঠিত দিরাই উপজেলার রাজানগর ইউনিয়নের ৭ নং ওয়ার্ডের আয়োজনে ওয়ার্ড সভা অনুষ্ঠিত দিরাইয়ের করিমপুর ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ডের আয়োজনে ওয়ার্ড সভা অনুষ্ঠিত নেপাল-বাংলাদেশ ফ্রেন্ডশীপ আ্যওয়ার্ড ২০২৪ পদকে ভুষিত হলেন অধ্যাপক হরি দাস রায়।। দিরাইয়ে এফআইভিডিবি-আরইসিসি প্রকল্পের সহযোগিতায় ওয়ার্ড সভা অনুষ্ঠিত শ্রীমঙ্গলে গ্যাস সঞ্চালন লাইনের ওপর নির্মিত অবৈধ ২৫টি ঝুঁকিপূর্ণ স্থাপনা উচ্ছেদ জুড়ীতে পানিতে ডুবে দুই শিশু ও রাজনগরে মোটরসাইকেল আরোহীর মৃত্যু মৌলভীবাজারে কোরবানির পশুর হাটের নিরাপত্তা সংক্রান্ত মতবিনিময় সভা
গোয়াইনঘাটে গৃহবধূকে গণধর্ষণ: মামলা নিলেও আসামি ধরছে না পুলিশ!

গোয়াইনঘাটে গৃহবধূকে গণধর্ষণ: মামলা নিলেও আসামি ধরছে না পুলিশ!

এ এ রানা:::
সিলেট জেলার গোয়াইনঘাট উপজেলার ৫নং পূর্ব আলীরগাঁও ইউনিয়নের লামা কুটাপাড়া এলাকায় এক গৃহবধূকে সংঘবদ্ধ গণধর্ষণের ঘটনায় এলাকা জুড়ে তুলকালাম সৃষ্টি হয়েছে। এ ঘটনায় গোয়াইনঘাট থানা পুলিশ নিয়মিত গণধর্ষণের মামলা নিলেও অজ্ঞাত কারণে মামলার আসামিদের ধরছে না পুলিশ বলে ধর্ষিতা গৃহবধূর পরিবারের অভিযোগ।

এমন অভিযোগ এনে লামা কুটাপাড়া এলাকার- নুরুজ আলীর পুত্র ইমন মিয়া (৩০), মৃত সৈয়দ আলীর পুত্র নজরুল ইসলাম (৫৫) ও মৃত সিকন্দর আলীর পুত্র ইসলাম আলীকে (৫০) আসামি করে গোয়াইনঘাট থানায় গণধর্ষণ মামলা দায়ের করেন ওই ধর্ষিতা গৃহবধূ। যাহার থানার মামলা নং- ০৯,তাং- ১০/১০/২৩ইং।

এদিকে, এ ঘটনায় গোয়াইনঘাট থানা পুলিশ নিয়মিত গণধর্ষণ মামলা নিলেও মামলার রুজুর প্রায় ১০ দিন অতিক্রম হতে চলছে অথচ অজ্ঞাত কারণে আসামিদের গ্রেফতার করতে ব্যর্থ হচ্ছেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা। তবে মামলার আসামিরা প্রকাশ্য এলাকায় ঘুরাফিরা করলেও তাদের অদৃশ্য কারণে গ্রেফতার করছেন না মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা বলে ধর্ষিতা গৃহবধূর পরিবারের অভিযোগ।

মামলা সুত্রে জানা গেছে- আসামিদের সহিত ধর্ষিতা গৃহবধূর স্বামীর জায়গা-জমি নিয়ে র্দীঘদিন হইতে বিরোধ চলে আসছিলো। গত (০৯ই জানুয়ারি) ধর্ষিতা গৃহবধূর স্বামী কাজের সুবাধে সন্ধ্যার দিকে বাহিরে চলে যান। ধর্ষিতা গৃহবধূর স্বামী বাড়িতে না থাকার সুবাধে পূর্ব বিরোধের জের ধরে (১০ই জানুয়ারি) রাত্রি অনুমাণ ০২ ঘটিকার সময় ধর্ষিতা গৃহবধূর বসত ঘরের ভেড়া ভাঙ্গিয়া তার শয়ন কক্ষে ডুকিয়া তাকে ঝাপটাইয়া ধরিলে তিনি চিৎকার করিলে আসামিরা একে অপরের নাম ধরিয়া ডাকাডাকি করে এবং তার মুখে চাপ দিয়া ধরে আসামিগণ তাকে কোলে তুলে ঘর হইতে বাহির করিয়া তার বসত বাড়ির পশ্চিম পার্শ্বের খালের পাড়ে মাটিতে ফেলিয়া সমূহ আসামিগণ পালাক্রমে তার ইচ্ছার বিরুদ্ধে একাধিকবার ধর্ষণ করে।

এব্যাপারে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ইন্সপেক্টর (নিরস্ত্র) মোঃ ওমর ফারুক এর ব্যবহৃত মোবাইল নাম্বারে যোগাযোগ করলে তিনি জানান- এখনো আসামি ধরা যায় নি তবে আসামি ধরতে আমাদের অভিযান চলমান।

এব্যাপারে গোয়াইনঘাট সার্কেলের জ্যেষ্ঠ সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) প্রবাস কুমার সিংহ এর ব্যবহৃত সরকারি নাম্বারে যোগাযোগ করলে তিনি জানান- আসলে এই মূর্হতে এ মামলার বিষয়টি আমার সঠিক জানা নেই তবে গণধর্ষণ মামলার আসামি ত না ধরার কথা নয়। তারপরও বিষয়টি তিনি গুরুত্ব সহকারে দেখবেন বলে প্রতিবেদকে আশ্বাস প্রদান করেন।

সর্বশেষে আসামিদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় নিয়ে আসার জন্য সিলেট জেলা পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তার নিকট আশু হস্তক্ষেপ কামনা করছেন ধর্ষিতা গৃহবধূ ও তার পরিবার ।

সংবাদটি শেয়ার করুন :





© All rights reserved © 2021 Holysylhet