সংবাদ শিরোনাম :
শ্রীমঙ্গলে জ্ঞানমুদ্রা বেদ ও গীতা পরিবার এর প্রথম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী ও সংবর্ধনা শ্রীমঙ্গলে এক দিনে ৩টি বন্যপ্রাণী উদ্ধার শ্রীমঙ্গলে ঠাকুর ঘর থেকে পাতি বেত আঁচড়া সাপ উদ্ধার বন্যার্তদের মাঝে মৌলভীবাজার জেলা পুলিশের খাবার বিতরণ মৌলভীবাজারে বন্যার পানিতে ডুবে কিশোর ও শিশুর মৃত্যু শ্রীমঙ্গলে কৃতি শিক্ষার্থী সংবর্ধনা ও নবীন বরণ অনুষ্টান মৌলভীবাজারের পাহাড়ী ঢল ও ভারী বৃষ্টিপাতে ৩৩২ গ্রাম প্লাবিত ছাতকে বন্যার পানিতে থৈ-থৈ করছে উপজেলার সর্বত্র, ঘর-বাড়ি রাস্তা-ঘাট সহ বিস্তীর্ণ এলাকা প্লাবিত,পানি বন্দী হাজার হাজার মানুষ ৩ দিনব্যাপী মার্শাল আর্ট সেমিনারের সমাপনী অনুষ্ঠান ও সনদ বিতরণ মৌলভীবাজারে সৌদি আরবের সাথে মিল রেখে শতাধিক পরিবারের ঈদ উদযাপন
মৌলভীবাজারে কাউয়াদিঘী হাওর ধ্বংস করে শিল্পায়নের প্রতিবাদে সভা

মৌলভীবাজারে কাউয়াদিঘী হাওর ধ্বংস করে শিল্পায়নের প্রতিবাদে সভা

নিজস্ব প্রতিবেদক:
মৌলভীবাজারের রাজনগরে অবস্থিত কাউয়াদিঘী হাওরে সৌরবিদ্যুৎ কেন্দ্র স্থাপন ও শিল্পায়নের নামে হাওর ধ্বংসের পায়তারা প্রতিবাদে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার রাতে মৌলভীবাজার পৌরসভার সম্মেলন কক্ষে ওই করেছে হাওর রক্ষা আন্দোলন নামের একটি সংগঠনো উদ্যোগে মতবিনিময় অনুষ্ঠিত হয়।
সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের সয়েল সাইন্স বিভাগের অধ্যাপক ড. এম এ কাশেম।
কাউয়াদিঘী হাওর রক্ষা আন্দোলন কমিটির আহবায়ক আ স ম ছালেহ সোহেল এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ এনভায়রনমেন্টাল ল’ইয়ার্স এসোসিয়েশন সিলেট বিভাগের কো-অর্ডিনেটর এডভোকেট শাহ শাহেদা আক্তার। মতবিনিময় সভায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, অধ্যক্ষ তোফায়েল আহমদ, সিনিয়র সাংবাদিক সরওয়ার আহমদ, বীর মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আনছার আলী, প্রবীণ কৃষক নেতা আব্দুর রাজ্জাক, মাওলানা মকবুল হোসেন খান, বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা) মৌলভীবাজার শাখার সদস্য সচিব শিব প্রসন্ন ভট্টাচার্য, হাওর রক্ষা সংগ্রাম কমিটি রাজনগর উপজেলার আহবায়ক সামছুদ্দিন মাস্টার, কাউয়াদিঘী সমাজ কল্যাণ সংস্থার সভাপতি কয়ছর চৌধুরী, কাউয়াদিঘি হাওর রক্ষা আন্দোলনের যুগ্ম-সদস্য সচিব আলমগীর হোসেন, যুগ্ম আহবায়ক নুরুল ইসলাম ফয়ছল, ফতেপুর ইউনিয়নের বখতিয়ার উদ্দিন, যায়যায়দিনের স্টাফ রিপোর্টার মোঃ আব্দুল ওয়াদুদ, যুগান্তরের জেলা প্রতিনিধি হোসাইন আহমদ প্রমুখ। সভায় বক্তারা কাউয়াদিঘী হাওরে সৌরবিদ্যুৎ কেন্দ্র স্থাপন, হাওরের রূপ পরিবর্তন করে শিল্পায়ন বা উন্নয়নের নামে যেকোনো কর্মকান্ড হাওর ধ্বংসের গতিধারাকে তরান্বিত করবে এবং পরিবেশের বিপর্যয় হবে এমন আশংকা প্রকাশ করেন। তারা বলেন, প্রাকৃতিক এই জলাধার মাছে ভাতে বাঙ্গালির শুধু খাবারের চাহিদাই মিটায় না, প্রকৃতি-পরিবেশ রক্ষায় নিয়ামক হিসাবেও কাজ করে। তাই এ জায়গায় সৌরবিদ্যুৎ কেন্দ্র স্থাপিত হলে পরিবেশের মারাত্মক বিপর্যয় হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন :





© All rights reserved © 2021 Holysylhet