সংবাদ শিরোনাম :
শ্রীমঙ্গলে আ. লীগের ৭৫তম প্রতিষ্টাবার্ষিকী পালন শ্রীমঙ্গলে লোকালয় থেকে আবারও বিশাল আকৃতির অজগর উদ্ধার শ্রীমঙ্গলে জ্ঞানমুদ্রা বেদ ও গীতা পরিবার এর প্রথম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী ও সংবর্ধনা শ্রীমঙ্গলে এক দিনে ৩টি বন্যপ্রাণী উদ্ধার শ্রীমঙ্গলে ঠাকুর ঘর থেকে পাতি বেত আঁচড়া সাপ উদ্ধার বন্যার্তদের মাঝে মৌলভীবাজার জেলা পুলিশের খাবার বিতরণ মৌলভীবাজারে বন্যার পানিতে ডুবে কিশোর ও শিশুর মৃত্যু শ্রীমঙ্গলে কৃতি শিক্ষার্থী সংবর্ধনা ও নবীন বরণ অনুষ্টান মৌলভীবাজারের পাহাড়ী ঢল ও ভারী বৃষ্টিপাতে ৩৩২ গ্রাম প্লাবিত ছাতকে বন্যার পানিতে থৈ-থৈ করছে উপজেলার সর্বত্র, ঘর-বাড়ি রাস্তা-ঘাট সহ বিস্তীর্ণ এলাকা প্লাবিত,পানি বন্দী হাজার হাজার মানুষ
সিলেটে নান্টু শাহিনের ভয়াল মাদকের থাবায় ধ্বংসের পথে যুবসমাজ

সিলেটে নান্টু শাহিনের ভয়াল মাদকের থাবায় ধ্বংসের পথে যুবসমাজ

এ এ রানা:: সিলেট দক্ষিণ সুরমার পুরাতন রেল স্টেশনের ঝাড়ুদার প্রদীপ লাল এর পুত্র মাদক ব্যবসায়ী ও জুয়ারী নান্টু এবং বড়ইকান্দি রুটিয়ালা বাড়ীর শাহিনের মাদকের ভয়াল থাবা ও প্রতারণায় অতিষ্ট স্থানীয়রা।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, নান্টু লাল নগরীর দক্ষিণ সুরমার পুরাতন রেল স্টেশনে এবং কীন ব্রিজের নিচে মেতর পট্টি এলাকায় ও পুরাতন রেলওয়ে প্লাটফর্মে নির্বিঘ্নে জিআরপি থানা পুলিশের সামনে প্রকাশ্যে দিবালোকে প্রতিদিন বিকাল ৩টা থেকে রাত সাড়ে ১১টা পর্যন্ত চালায় শীলং তীর নাইট তীর নামক জুয়ার প্রতারণা ও মাদক ব্যবসা।

রেলওয়ে স্টেশন এলাকার দোকানী,নিম্ন আয়ের মানুষ, ঝাড়ুদার, ভিক্ষুক, রেল শ্রমিক, রিক্সা চালক, ভ্যান চালক, সিএনজি চালক, অটোরিকশা চালক, সুইপার এবং যাত্রীরা তাহার জুয়ার প্রতারণার শিকার হয়ে বিভিন্ন অপরাধ মূলক কর্মকার্ন্ডে জড়িয়ে পড়ছে। জিআরপি থানার সামনে এসব অপরাধ চল্লেও জিআরপি পুলিশের নীরব ভূমিকা রহস্যজনক।

মাঝে মধ্যে অভিযান দিয়ে জুয়াড়ীদের বিতারিত করলেও বন্ধ হচ্ছেনা নান্টুর জুয়ার প্রতারণা ও মাদক ব্যবসা। কখনও পুরাতন রেলওয়ে স্টেশনের প্লাটফর্ম আবার কখন প্লাটফর্মের বাহিরে উত্তর পশ্চিম দিকের পাবলিক টয়লেটের বারান্দায় দেদারছে চলে নান্টুর জুয়ার প্রতারণা।
এছাড়া নান্টু লাল কীন ব্রীজের নিচে মেতর পট্টি এলাকায় প্রকাশ্যে চালায় জুয়া ও মাদক ব্যবসা। আর শাহিন খেয়াঘাট, বাঁশপালা মার্কেট, টেনিকেল রোড, সুরমা মহল আস্তানায় এবং মেতর পট্টিতে চালায় মাদক ব্যবসা। সে মোবাইলে ইয়াবার অর্ডার নিয়ে গ্রাহকদের কাছে মাল পৌছে দিয়ে থাকে।

মাদক ব্যবসায়ী মজনু প্রবাসে চলে গেলে এই এলাকার কর্তৃত্ব নান্টু তার দখলে নিয়েছে। নিম্ন আয়ের মানুষ নান্টু লালের জুয়া ও মাদকের ছুবলে পরে সব হারিয়ে নিঃস্ব হয়ে খালি হাতে বাড়ীতে ফিরে।

নান্টু লাল ও শাহিনের মূল ব্যবসাই হচ্ছে মাদক। তারা রেলওয়ে স্টেশন এলাকা ও মেতর পট্টিতে পুলিশের সামনেই গাজা ও ইয়াবা ব্যবসা চালায়। পাইকারী ও খুচরা দুইভাবে চলে নান্টু ও শাহিনের অবৈধ মাদক ব্যবসা। নান্টুর বিরুদ্ধে ৩টি মাদকের মামলা রয়েছে বলে বিশ্বস্থ একটি সূত্র জানিয়েছে।

স্থানীয়রা তাহাদের বিরুদ্ধে কথা বলতে পারেনা। সাহস করে কেউ যদি কথা বলে তাহলে সুইপার এবং ঝাড়ুদার দারা নির্যাতনের শিকার হতে হয়। তাই কেউ প্রতিবাদ করতে চায়না।

স্থানীয়রা এই প্রতিবেদককে জানিয়েছেন প্রশাসন কঠোর না হলে নান্টু ও শাহিনের মাদক ব্যবসা ও জুয়ার প্রতারণা বন্ধ করা যাবেনা।

নান্টুর নেতৃত্বে জিআরপি থানা এলাকায় ও কীন ব্রীজের নিচে এবং শাহিনের নেতৃত্বে বাঁশ পালা মার্কেট খেয়াঘাট ও মেতর পট্টিতে গড়ে উঠেছে বিশাল মাদকের সিন্ডিকেট। এই মাদকের ভয়াল থাবায় ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে দক্ষিন সুরমার যুবসমাজ।

সংবাদটি শেয়ার করুন :





© All rights reserved © 2021 Holysylhet