সংবাদ শিরোনাম :
চা কন্যার অজানা তথ্য নিয়ে আল ইকরাম নয়নের ভিডিও কন্টেন্ট সবজি ক্ষেতের জ্বালে আটকে পড়া দাঁড়াশ সাপ উদ্ধার দক্ষিণ সুরমা থেকে ডিবি পুলিশের অভিযানে ০৩ কেজি গাঁজাসহ এক মাদক ব্যবসায়ি গ্রেফতার দক্ষিণ সুরমা থেকে ডিবি পুলিশের অভিযানে ০৩ কেজি গাঁজাসহ এক মাদক ব্যবসায়ি গ্রেফতার ডিবির অভিযানে খালিঘাট বস্তাপট্টি শরিফ ও জামালের  জুয়ার আস্তানা থেকে  খেলার সামগ্রী সহ ৩ জুয়ারী গ্রেফতার! ঈদ ও নববর্ষের টানা ছুটিতে চায়ের রাজ্যে ঢল নেমেছে পর্যটকের অবশেষে দক্ষিণ সুরমার শীর্ষ জুয়ারী কাশেমসহ পুলিশের হাতে আটক-৬, এখনো বহাল নজরুল-জামাল-অন্তরের জুয়ার প্রতারণা, সিলেটে মোটরসাইকেলে বেড়াতে বেরিয়ে ৩ বন্ধুই না ফেরার দেশে জাফলংয়ে নারী পর্যটকদের যৌন হয়রানি: এক তরুণের দুই বছরের কারাদণ্ড হবিগঞ্জের আজমিরীগঞ্জে গরুর ঘাস খাওয়া নিয়ে সংঘর্ষে আহত ৩৫
শ্রীমঙ্গলের মার্কেটে আগুন, অল্পের জন্য রক্ষা

শ্রীমঙ্গলের মার্কেটে আগুন, অল্পের জন্য রক্ষা

নিজস্ব প্রতিবেদক:
মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল শহরের প্রাণকেন্দ্র হবিগঞ্জ রোডের সোনালী মার্কেটে জেনারেটর থেকে আগুন লেগে একটি ডায়াগনস্টিক সেন্টারের প্রায় ৩ লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি সাধিত হয়েছে।
বৃহস্পতিবার (১৮ জানুয়ারি) রাত ৮টারদিকে হবিগঞ্জ রোডের সোনালী মার্কেটের পপুলার ডায়াগনস্টিক সেন্টারের জেনারেটর রোমে আগুন লাগে। আগুন লাগলে মাকের্টের ব্যবসায়ীদের মধ্যে আতঙ্ক দেখা দেয়। পরে তারা শ্রীমঙ্গল ফায়ার সার্ভিসে খবর দেয়। ফায়ার সার্ভিস আসার আগেই পার্শবর্তী এমবি ডিপার্টমেন্টাল স্টোরের কর্মচারি ও অন্যান্য ব্যবসা প্রতিষ্টানের লোকজন আগুন কিছুটা নিয়ন্ত্রনে আনতে সক্ষম হয়। পরে ফায়ার সার্ভিস এসে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনলে মার্কেটের অনেক ব্যবসা প্রতিষ্টান রক্ষা পায়।
পপুলার ডায়াগনিস্টিক সেন্টারের পরিচালক শেখর ফায়ার সার্ভিসের উপর অভিযোগ করে বলেন, আগুন লাগার পরপরই ফায়ার সার্ভিসকে খবর দেওয়া হয়। কিন্তু তারা আসতে আধ-ঘন্টা দেরি করেন। তিনি বলেন, আগুনে পুুড়ে আমার প্রতিষ্টানের জেনারেটরসহ ইলেকট্রিক মালামাল পুড়ে প্রায় ৩ লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি হয়েছে।
মার্কেটের অন্য ব্যবসায়ী আবু তোয়াহিদ আকাশ বলেন, জেনারেটর রোমের পাশেই আমার ব্যবসা প্রতিষ্টান। এমবি ডিপার্টমেন্টাল স্টোরের কর্মচারিরা সাহস করে এগিয়ে না আসলে হয়তো আজ অনেক বড় অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটতে পারতো। এ ব্যাপারে শ্রীমঙ্গল ফায়ার সার্ভিস স্টেশন ম্যানাজার আবু তাহের মিয়া বলেন, আগুনের খবর পেয়ে আমরা তাৎক্ষনিক রওয়ানা হই। পথে যানজট হওয়াতে আসতে কিছুটা বিলম্ব হয়েছে।
আগুন লাগার বিষয়ে তিনি বলেন, জেনারেটর বন্ধ ছিল। এ অবস্থায় আগুন লাগার কথা না। জেনারেটর রোমে প্রচুর পরিমান কাপড় ও তোলা রাখা ছিল। কেউ হয়তো সিগারেট খেয়ে কাপড়ের উপর ফেলে দেয়। আর সেখান থেকে আগুনের সুত্রপাত হতে পারে।

 

সংবাদটি শেয়ার করুন :





© All rights reserved © 2021 Holysylhet