সংবাদ শিরোনাম :
সিলেটের বিভিন্ন সীমান্তের চোরাকারবারিদের দৌরাত্ম্যের ২য় পর্বে জৈন্তাপুর উপজেলা বড়লেখায় পুলিশের অভিযানে ২০০ পিস ইয়াবাসহ আটক ১ সিলেট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে সচেতন নাগরিক ফোরামের মানববন্ধন পরিবেশ অধিদপ্তরের অনিয়ম দুর্নীতির বিরুদ্ধে সতর্ক থাকার আহবান চা কন্যার অজানা তথ্য নিয়ে আল ইকরাম নয়নের ভিডিও কন্টেন্ট সবজি ক্ষেতের জ্বালে আটকে পড়া দাঁড়াশ সাপ উদ্ধার দক্ষিণ সুরমা থেকে ডিবি পুলিশের অভিযানে ০৩ কেজি গাঁজাসহ এক মাদক ব্যবসায়ি গ্রেফতার দক্ষিণ সুরমা থেকে ডিবি পুলিশের অভিযানে ০৩ কেজি গাঁজাসহ এক মাদক ব্যবসায়ি গ্রেফতার ডিবির অভিযানে খালিঘাট বস্তাপট্টি শরিফ ও জামালের  জুয়ার আস্তানা থেকে  খেলার সামগ্রী সহ ৩ জুয়ারী গ্রেফতার! ঈদ ও নববর্ষের টানা ছুটিতে চায়ের রাজ্যে ঢল নেমেছে পর্যটকের অবশেষে দক্ষিণ সুরমার শীর্ষ জুয়ারী কাশেমসহ পুলিশের হাতে আটক-৬, এখনো বহাল নজরুল-জামাল-অন্তরের জুয়ার প্রতারণা,
গোলাপগঞ্জ সুরমা নদী থেকে অবৈধভাবে ড্রেজিং করে বালু উত্তোলন বন্ধের দাবীতে এলাকা বাসীর অভিযোগ ইউএনও বরাবরে।

গোলাপগঞ্জ সুরমা নদী থেকে অবৈধভাবে ড্রেজিং করে বালু উত্তোলন বন্ধের দাবীতে এলাকা বাসীর অভিযোগ ইউএনও বরাবরে।

 

গোলাপগঞ্জ উপজেলা প্রতিনিধিঃ
গোলাপগঞ্জ উপজেলার সুরমা নদী থেকে একটি সংঘবদ্ধ চক্র দীর্ঘদিন থেকে অবৈধভাবে ড্রেজিং করে বালু উত্তোলন করে সরকারের লক্ষ লক্ষ টাকা রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে আসছে।

জানা যায়, গোলাপগঞ্জ উপজেলার হেতিমগঞ্জ শিংপুর, বাঘরখলা, উত্তরভাগ,হিলালপুর ও মোল্লাগ্রাম সংলগ্ন সুরমা নদীর বালু মহাল হতে অবৈধ ভাবে বালু উত্তোলন করায় সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যাবস্থা সহ অবিলম্বে সুরমানদী থেকে অবৈধ ভাবে বালু উত্তোলন বন্ধ করার দাবীতে ৫/৬ টি গ্রামের জনসাধারণের পক্ষ থেকে ফুলবাড়ি ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মজনু আহমদ সহ এলাকার সুধী সচেতন ৯৩ জনের গন সাক্ষর সম্বলিত গত কাল ২১ সেপ্টেম্বর ২০২৩ ইং গোলাপগঞ্জ উপজেলার নির্বাহী অফিসার বরাবরে একটি লিখিত অভিযোগ প্রদান করা হয়।

অভিযোগপত্রে তারা উল্লেখ করেন , এডিসি রেভিনিউ সিলেট থেকে তাং ১১/৬/২০২৩ ইং যার স্মারক নং ১০৬১ জনৈক মিজানুর রহমান পিতা মৃত আব্দুর রহিম সাং নন্দীরাই কানাইঘাট সিলেট নামের এক ব্যাক্তিকে কেবল মাত্র (হাতিম নগর বালু মহাল) ৩০ চৈত্র ১৪৩০ বাংলা সময়ের জন্য ইজারা দেয়া হয়। কিন্তু উক্ত ইজারাদার সহ নলুয়া গ্রামের বুলবুল, সরস্বতী – খামার গাও গ্রামের দেলোয়ার সহ আরোও কিছু ক্ষতিপয় ব্যাক্তিবর্গ, মাইজভাগ, হিলালপুর, উত্তর ভাগ, মৌজা সহ অন্যান্য মৌজার বালু মহাল সহ সুরমা নদী থেকে বেপরোয়া ভাবে অবৈধভাবে ড্রেজিং করে বালু উত্তোলনের প্রক্রিয়া অব্যাহত রেখেছে। ফলে অসাধু চক্র কলে- বলে ও কৌশলে সরকারের লক্ষ লক্ষ টাকা রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে কোটি কোটি টাকার বালু উত্তোলন করে অল্প দিনে তারা আঙ্গুল ফুলে কালাগাছ বনে যাচ্ছে।
সুরমা নদীর দু পারের মানুষ দীর্ঘদিন থেকে নদী ভাঙ্গনের কবলে পড়ে অনেকে বাড়ী ঘর, মাসজিদ, মাদ্রাসা, ও একমাত্র কৃষিজমি হারিয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছে। তাই নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনকারী চক্রের হাত থেকে বাঁচতে বিগত
১৮ -৯-২০২৩ ইং সিলেট -৬ গোলাপগঞ্জ বিয়ানীবাজার আসনের এমপি নুরুল ইসলাম নাহিদ এমপি সরনাপন্ন হলে তাঁর হস্তক্ষেপে দুদিন নদীতে ড্রেজিং করে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন বন্ধ ছিল। কিন্তু অসাধু বালু খেকু চক্র আবারো ২০ সেপ্টেম্বর থেকে বালু উত্তোলন শুরু করে। তাই এলাকার মানুষ কোনো উপায়ান্তর না পেয়ে
২১ সেপ্টেম্বর গোলাপগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবরে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন । তারই প্রেক্ষিতে ২২ সেপ্টেম্বর রোজ শুক্রবার সকাল থেকে বালু খেকু চক্র প্রতি দিনের ন্যায় ড্রেজিং করে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন কাজ শুরু করে। এসময় এলার পক্ষ থেকে স্থাবীয় প্রশাসন ইউএনওকে বিষয়টি অবগত করলে উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি ঘটনাস্থলে আসলে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনকারীরা পুলিশ প্রশাসনের উপস্থিতি টের পেয়ে ড্রেজিং মেশিন রেখে ছোট নৌকা করে সবাই পালিয়ে যায়।
প্রশাসন কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনী তবে তারা বলেছেন এ অভিযান অব্যাহত থাকবে। অভিযানের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ফুলবাড়ী ইউনিয়ন ভুমি অফিসের তহশিলদার।

সংবাদটি শেয়ার করুন :





© All rights reserved © 2021 Holysylhet