সংবাদ শিরোনাম :
শ্রীমঙ্গলে তীব্র তাপদাহে কৃষি মন্ত্রীর উদ্যোগে পথচারীর মাঝে শরবত বিরতণ শ্রীমঙ্গলে প্রথমবারের মতো হাইব্রিড জাতের গোল্ডেন ওয়ান চিকন ধানের বাম্পার ফলন মাঠে হাসছে হাইব্রিড জাতের গোল্ডেন ওয়ান চিকন ধান মহান মুক্তিযুদ্ধের অঙ্গীকার বাস্তবায়নে নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছে বাংলাদেশ হাউজ বিল্ডিং ফাইন্যান্স কর্পোরেশন: অতিরিক্ত সচিব মো.আজিমুদ্দিন বিশ্বাস মৌলভীবাজারে জেলা পুলিশের মাস্টার প্যারেড ও মাসিক কল্যাণ সভা অনুষ্ঠিত শ্রীমঙ্গলে নাট্যবেদ নৃত্য নিকেতন এর রজত জয়ন্তী উৎসব অনুষ্ঠিত সিলেট প্রেসক্লাবের উৎসবমুখর নির্বাচন: ইকু সভাপতি, সিরাজ সম্পাদক সুনামগঞ্জে ধান কেটে উৎসবের উদ্বোধন করলেন কৃষি মন্ত্রী  মৌলভীবাজারে জুয়ার আসরে ডিবির অভিযান, জুয়া খেলার সরঞ্জাম, নগদ টাকাসহ ১৩ জুয়াড়ী গ্রেপ্তার
শ্রীমঙ্গলে নানা আয়োজনে শেষ হলো দুই দিনের সাহিত্যমেলা

শ্রীমঙ্গলে নানা আয়োজনে শেষ হলো দুই দিনের সাহিত্যমেলা

নিজস্ব প্রতিবেদক,শ্রীমঙ্গল:

শ্রীমঙ্গলে নানা আয়োজনে শেষ হলো দুই দিনের সাহিত্যমেলা
মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে শুক্রবার (২৮ জুলাই) দিনব্যাপী বইমেলায় স্থানীয় কবি, লেখক, সাহিত্যিকদের বই প্রদর্শনী ও বিক্রির মধ্য দিয়ে ২ দিনের সাহিত্যমেলা সমাপ্ত হয়েছে।
বাংলা একাডেমির সমন্বয়ে সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের পৃষ্ঠপোষকতা ও জাতীয় গ্রন্থকেন্দ্রের সহযোগিতায় আয়োজিত সাহিত্যমেলার ব্যবস্থাপনায় ছিলো শ্রীমঙ্গল উপজেলা প্রশাসন।
বৃহস্পতিবার (২৭ জুলাই) শ্রীমঙ্গল মহসীন অডিটোরিয়ামে সাহিত্যমেলার উদ্বোধন করা হয়।
ঢাকা থেকে মুঠোফোনে যুক্ত হয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে এর উদ্বোধন করেন মৌলভীবাজার- ৪ আসনের সংসদ সদস্য, অনুমিত হিসাব সম্পর্কিত কমিটির সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা উপাধ্যক্ষ ড. মো. আব্দুস শহীদ। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন- শ্রীমঙ্গল উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ভানুলাল রায়, বিশিষ্ট চিকিৎসক ও সমাজসেবক ডা. হরিপদ রায়, সাংবাদিক ও কথাসাহিত্যিক আকমল হোসেন নিপু, মৌলভীবাজার জেলা শিল্পকলা একাডেমির কালচারাল অফিসার জ্যোতি সিনহা, শ্রীমঙ্গল প্রেসক্লাবের সভাপতি বিশ্বজ্যোতি চৌধুরী। এতে সভাপতিত্ব করেন শ্রীমঙ্গল উপজেলা নির্বাহী অফিসার আলী রাজীব মাহমুদ মিঠুন। অনুষ্ঠানের সঞ্চালক ছিলেন আবৃত্তিকার ও সংস্কৃতিজন দেবাশীষ চৌধুরী।
মেলার প্রথম পর্বে ছিল লেখক কর্মশালা। এই পর্বে কবিতা, ছড়া, কথাসাহিত্য, নাটক, প্রবন্ধ-গবেষণা প্রভৃতি রচনার কলাকৌশল ও পদ্ধতিগত বিভিন্ন দিক নিয়ে আলোচনা করেন কর্মশালার প্রশিক্ষক খ্যাতিমান কবি ও গবেষক প্রফেসর নৃপেন্দ্রলাল দাশ। দ্বিতীয় পর্বের বিষয়বস্তু ছিলো ‘শ্রীমঙ্গল উপজেলার সাহিত্য ও সংস্কৃতি’। এই পর্বে সাহিত্য বিষয়ে মূল প্রবন্ধ রচনা করেন শিক্ষক ও প্রাবন্ধিক দীপেন্দ্র ভট্টাচার্য। প্রবন্ধটি পাঠ করেন শিক্ষক ও আবৃত্তিকার জলি পাল। সংস্কৃতি বিষয়ে মূল প্রবন্ধ লিখেন সুরকার ও সংস্কৃতিজন বুলবুল আনাম। এটি পাঠ করেন শিক্ষক ও রবীন্দ্রসংগীত শিল্পী আল্পনা সেন। এই পর্বে সভাপতিত্ব করেন মৌলভীবাজার জেলা শিল্পকলা একাডেমির কালচারাল অফিসার জ্যোতি সিনহা। প্রবন্ধ দুটি নিয়ে আলোচনা করেন আবৃত্তিকার ও সংস্কৃতিজন দেবাশীষ চৌধুরী, কবি ও গবেষক ড. এস এ মুতাকাব্বির মাসুদ, কবি ও শিশুসাহিত্যিক চন্দনকৃষ্ণ পাল এবং ছড়াকার ও শিশুসাহিত্যিক অবিনাশ আচার্য। চতুর্থ পর্বটি সাজানো ছিলো স্থানীয় লেখকদের স্বরচিত ‘সাহিত্যপাঠ ও আড্ডা’ দিয়ে। এতে সভাপতিত্ব করেন সাংবাদিক ও কথাসাহিত্যিক আকমল হোসেন নিপু। এই পর্বে স্থানীয় লেখকেরা নিজেদের রচিত ছড়া, কবিতা, ছোটো গল্প, প্রবন্ধ ইত্যাদি থেকে নির্বাচিত অংশ পাঠ করেন।
একেকটি পর্বের শুরুতে স্থানীয় শিল্পীরা সঙ্গীত প্রশিক্ষক কৃষ্ণকলি সূত্রধরের পরিচালনায় পরিবেশন করেন রবীন্দ্র ও নজরুল সঙ্গীত। নৃত্য প্রশিক্ষক অনিতা দেবের কোরিয়গ্রাফিতে পরিবেশন করা হয় নৃত্য। মৌলভীবাজার জেলার সাহিত্য ও সংস্কৃতি অনুরাগীদের পদচারণায় অনুষ্ঠান প্রাঙ্গণটি পরিণত হয়েছিল এক অনন্য মিলনমেলায়।

সংবাদটি শেয়ার করুন :





© All rights reserved © 2021 Holysylhet