সংবাদ শিরোনাম :
১৭ পদাতিক ডিভিশন সিলেট অঞ্চলের তত্ত্বাবধানে আন্তর্জাতিক জাতিসংঘ শান্তিরক্ষী দিবস-২০২৪ পালন করা হয়েছে । শ্রীমঙ্গলে শান্তিপূর্ন ভোট গ্রহণ শেষে চলছে গননা সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার  কর্তৃক সহকারী পুলিশ কমিশনার কোতোয়ালী মডেল থানা কার্যালয় পরিদর্শন শ্রীমঙ্গলে দুই ভোট কেন্দ্রের চারজন সহকারী প্রিসাইডিং অফিসারকে দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি হযরত শাহজালাল (রহঃ) এর মাজার শরীফের ৭০৫তম পবিত্র ওরস এর আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি পরিদর্শন করেন সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার শেখ হাসিনার ৪৩তম স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে ইউকে ওয়েলস আওয়ামী লীগের সভা অনুষ্ঠিত শ্রীমঙ্গলে র‌্যাবের অভিযানে ইয়াবা, মদ ও পিস্তলসহ যুক্তরাজ্য নাগরিক আটক কুলাউড়ায় ভোক্তার অভিযানে ৩ প্রতিষ্টানকে জরিমানা যুক্তরাজ্যের বাকিংহাম প্যালেসে রাজপরিবারের পার্টিতে আমন্ত্রন পেলেন শ্রীমঙ্গলের অলিউল কবি কাজী নজরুলের জন্মবার্ষিকীতে বঙ্গবন্ধু লেখক সাংবাদিক ফোরামের আলোচনা সভা
ইতালিতে বিশ্বের ৯০টি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাথে হাল্ট প্রাইজের জন্য লড়ছে মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটি

ইতালিতে বিশ্বের ৯০টি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাথে হাল্ট প্রাইজের জন্য লড়ছে মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটি

হলি সিলেট ডেস্কঃ

দেশের অন্যতম শীর্ষ বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থীরা ইতালির মিলান শহরে রিজিওনাল সামিট ২০২৩ এ অংশগ্রহনের জন্য মনোনীত হয়েছে। অর্থনীতি বিভাগের বিভিন্ন সেমিস্টারের শিক্ষার্থীদের নিয়ে গঠিত টিম ক্যানভাস নামে এ প্রতিযোগিতায় অংশ নিচ্ছেন। ক্যানভাস টিমের সদস্যরা হচ্ছেন আসিফ মোহাম্মদ তাজওয়ার, আহমেদ আশফাক, নাদিরা চৌধুরী, রোকসানা আক্তার ও মাসুম আহমেদ। ক্যানভাস টিমের ব্যবসা প্রস্তাবনাটি ছিল, পরিত্যক্ত কাপড় গুলোকে কাজে লাগিয়ে কিভাবে নতুন কিছু তৈরি করা যায় এবং তা বাজারজাতকরণের মাধ্যমে বৈশ্বিক অর্থনীতিতে কীভাবে অবদান রাখা যায়। হাল্ট প্রাইজ ২০২৩ প্রতিযোগিতার মূল উপপাদ্য ছিল রিডিজাইনিং ফ্যাশন। অর্থাৎ একটি বিদ্যমান পোশাক পরিবর্তন করা যাতে এটি আরও পরিধানের উপযোগী হয়। এর মাধ্যমে আমরা নষ্ট হয়ে যাওয়া কাপড়গুলোকে নতুনভাবে ব্যবহারের উপযোগ্য করে তুলতে পারা যায়। ক্যানভাস টিমের ব্যবসা প্রস্তাবনার মাধ্যমে অনেকের কর্মসংস্থান তৈরি হবে। পাশাপাশি এটি পরিবেশ ও প্রতিবেশবান্ধবও। বিশ্বের ফ্যাশন হাউজ ও টেইলারিং কারখানাগুলো থেকে পরিত্যাক্ত টুকরো কাপড় সংগ্রহ করে এসব দিয়ে নতুন ধরনের ডিজাইন ও ফ্যাশন সম্বলিত পোষাক তৈরী করে তা বিশ্বে বিভিন্ন দেশে বাজারজাতের উদ্যোগ নেয়া হবে। যা অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধিতেও অবদান রাখবে।
মেট্রোপলিটন বিশ্ববিদ্যালয়ের জন সংযোগ বিভাগ জানায়, গত ৬ ফেব্রুয়ারী বিকেলে প্রফেসর এম হাবিবুর রহমান হলে মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটি ও হাল্ট প্রাইজ এর যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত কর্মশালা থেকে অনেকগুলো টিম গড়ে ওঠে। পরবর্তিতে অন ক্যাম্পাস প্রতিযোগিতায় ক্যানভাস টিম বিজয়ী হয়। টিম ক্যানভাস ঢাকায় অনুষ্ঠিত সকল সরকারি ও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে নির্বাচিত টিমদের সাথে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে জয়লাভ করে। তারা বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করে ভারতের মুম্বাইতে। সেখানে মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটির টিম ক্যানভাস সফলতা লাভ করে ইতালির মিলান শহরে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে।
মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটির এ কৃতিত্বে ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোহাম্মদ জহিরুল হক তাঁর প্রতিক্রিয়ায় বলেন, আমরা শিক্ষার্থীদের চাকুরী প্রার্থী নয়; চাকুরী দাতা হিসেবে গড়ে তুলতে প্রচেষ্ঠা চালিয়ে যাচ্ছি। তাত্ত্বিক জ্ঞানদানের পাশাপাশি শিক্ষার্থীরা তাদের অর্জিত জ্ঞান যাতে বাস্তবে প্রয়োগ করতে পারে সে ব্যাপারে আমরা আন্তরিক। সেজন্যই আমাদের গ্র্যাজুয়েটরা গুগল, অ্যামাজন, নিউইয়র্ক স্টক এক্সচেঞ্জসহ দেশে বিদেশের শীর্ষ প্রতিষ্ঠানসমূহের গুরত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করছে। পাশাপাশি অনেকেই উদ্যোক্তা হিসেবে নিজেদের প্রতিষ্ঠিত করেছে। হাল্ট প্রাইজে এ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা ভালো করেছেন। এখানকার অনেকেই শিক্ষার পাশাপাশি অর্থ উপার্জন করছেন। ফ্রি ল্যান্সিং এর মাধ্যমে লেখাপড়ার শেষ করার পূর্বেই অনেকে মাসে লাখ টাকা উপার্জন করছেন। এটা আমাদের জন্য গর্বের। ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোহাম্মদ জহিরুল হক আরও বলেন, আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ে হাল্ট প্রাইজের জন্য একটি কমিটি রয়েছে। এ কমিটির শিক্ষকরা সারা বছর শিক্ষার্থীদের ব্যতিক্রমি ব্যবসা প্রস্তাবনা উন্নয়নে পরামর্শ ও উৎসাহ দিয়ে আসেন। আর এর প্রতিফলন আমরা পাচ্ছি যখন আমাদের গ্র্যাজুয়েটরা বিশ্বে দেশের সুমান বয়ে নিয়ে আসেন। আমি টিম ক্যানভাসের সদস্য ও সংশ্লিষ্ট শিক্ষকবৃন্দকে অভিনন্দন জানাচ্ছি।
উল্লেখ্য, এ রিজওনাল রাউন্ডটি বিশ্বের ১২ টি শহরে অনুষ্ঠিত হচ্ছে। বিশ্বের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আগত ৯০ টি দলের সাথে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটি। হাল্ট প্রাইজ হল একটি বার্ষিক প্রতিযোগিতা যেখানে বিভিন্নধরণের সামাজিক সমস্যা সমাধানের লক্ষ্যে বিশ্বের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় এবং কলেজ এর ছাত্রছাত্রীরা স্বতঃস্ফূর্তভাবে অংশগ্রহণ করে। প্রতিযোগিতায় বিজয়ী দলকে ১ মিলিয়ন মার্কিন ডলার পায়। বর্তমানে হাল্ট ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস স্কুল এবং ইউনাইটেড ন্যাশন্স ফাউন্ডেশন এর অংশীদারিত্বে অব্যাহত আছে এই হাল্ট প্রাইজ। হাল্ট প্রাইজকে বলা হয় নোবেল প্রাইজ ফর স্টুডেন্টস।

সংবাদটি শেয়ার করুন :





© All rights reserved © 2021 Holysylhet