সংবাদ শিরোনাম :
শ্রীমঙ্গলে জ্ঞানমুদ্রা বেদ ও গীতা পরিবার এর প্রথম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী ও সংবর্ধনা শ্রীমঙ্গলে এক দিনে ৩টি বন্যপ্রাণী উদ্ধার শ্রীমঙ্গলে ঠাকুর ঘর থেকে পাতি বেত আঁচড়া সাপ উদ্ধার বন্যার্তদের মাঝে মৌলভীবাজার জেলা পুলিশের খাবার বিতরণ মৌলভীবাজারে বন্যার পানিতে ডুবে কিশোর ও শিশুর মৃত্যু শ্রীমঙ্গলে কৃতি শিক্ষার্থী সংবর্ধনা ও নবীন বরণ অনুষ্টান মৌলভীবাজারের পাহাড়ী ঢল ও ভারী বৃষ্টিপাতে ৩৩২ গ্রাম প্লাবিত ছাতকে বন্যার পানিতে থৈ-থৈ করছে উপজেলার সর্বত্র, ঘর-বাড়ি রাস্তা-ঘাট সহ বিস্তীর্ণ এলাকা প্লাবিত,পানি বন্দী হাজার হাজার মানুষ ৩ দিনব্যাপী মার্শাল আর্ট সেমিনারের সমাপনী অনুষ্ঠান ও সনদ বিতরণ মৌলভীবাজারে সৌদি আরবের সাথে মিল রেখে শতাধিক পরিবারের ঈদ উদযাপন
দোয়ারাবাজারে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের প্রতিবাদে মানববন্ধন

দোয়ারাবাজারে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের প্রতিবাদে মানববন্ধন

এ এ রানা::
সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজারে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন বন্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে এলাকাবাসী।

সোমবার(১ মে) উপজেলার বাংলাবাজার ইউনিয়নের উরুরগাঁও গ্রামের চিলাই নদীর পাড়ে এ মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়।

স্থানীয় সমাজসেবক মো.শাহজাহান মিয়ার সভাপতিত্বে মানববন্ধন কর্মসূচিতে বক্তব্য রাখেন সমাজসেবক নান্দু মিয়া, শুক্কুর আলী,আব্দুল মতিন,আব্দুল মোতালিব,শহিদুল্লাহ, খোরশেদ আলম,মেগু মিয়া,রফি উদ্দিন, চান মিয়া, বশীর মিয়া,বিল্লাল মিয়া,ফরিদ মিয়া, গুলাপ মিয়া প্রমূখ।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, দোয়ারাবাজার উপজেলার বাংলাবাজার ইউনিয়নের চিলাই নদীর তীরবর্তী উরুরগাঁও এলাকাবাসী নিজেদের সামান্য পৈত্রিক জমিতে কৃষিকাজ করে জীবিকা নির্বাহ করেন। উরুরগাঁও গ্রামের পাশের চিলাই নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের কারণে নদীর পাড় ভেঙ্গে যাচ্ছে। এতে করে তাদের বসতভিটা ও ফসলি জমি ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে।

মানববন্ধনে বক্তারা আরও বলেন, চিলাই নদী থেকে প্রতিদিন রাত সমানতালে ড্রেজার মেশিং দিয়ে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করে বালুর স্তুপ টেক দিয়ে বিভিন্ন স্থানে বিক্রি করছে। অবৈধ বালু ব্যবসায়ী নুরু মিয়ার নেতৃত্বে একটি সিন্ডিকেট প্রতিদিন ৬-৭ টি ড্রেজার মেশিং দিয়ে বালু উত্তোলন করে সাপ্লাই দিচ্ছে। এতে করে একদিকে সরকার রাজস্ব হারাচ্ছে।অপরদিকে এলাকাবাসী নদী ভাঙ্গনের কবলে পড়ছেন।

মানববন্ধনে বক্তব্য দিতে গিয়ে কান্না জড়িত কন্ঠে বক্তারা জানান, এলাকার কেউ এ অবৈধ বালু উত্তোলনের প্রতিবাদ করলে তাদেরকে অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ, মারধর ও মিথ্যা মামলার হুমকি দেয় নুরু ও তার বাহিনী। এলাকার কেউ ভয়ে তার এ অবৈধ বালু উত্তোলনের ও মাটি কাটার বিরূদ্ধে কথা বলতে সাহস পায়না।

সরকার ও সংশ্লিষ্ট প্রশাসন যদি অবিলম্বে অবৈধ বালু কাটা বন্ধ না করেন তাহলে তাদের বাড়িঘর নদীগর্ভে বিলীন হয়ে যাবে।তখন ভিটেমাটি হারা হবে শতাধিক গ্রামবাসী।

মানববন্ধনে উপস্থিত এলাকাবাসী অবিলম্বে এ অবৈধভাবে বালু উত্তোলন বন্ধ করতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রীসহ সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের নিকট অনুরোধ জানান।

সংবাদটি শেয়ার করুন :





© All rights reserved © 2021 Holysylhet