সংবাদ শিরোনাম :
জৈন্তাপুরের হরিপুর বাজারে চলছে প্রশাসনের নামে লাখ লাখ টাকা চাঁদা আদায় বাণিজ্য! বড়লেখায় ৪ ছিন্তাইকারী গ্রেপ্তার, ছিন্তাইকৃত সিএনজি ও টাকা উদ্ধার বিশ্ব বন্যপ্রাণী দিবস উপলক্ষে লাউয়াছড়ায় পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা অভিযান লাউয়াছড়া উদ্যানে জিপ উল্টে নৃত্য শিল্পীসহ আহত ৭ বাংলাদেশ উন্নয়ন ও সমৃদ্ধির পথে এগিয়ে যাচ্ছে : মেয়র আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী কুলাউড়ায় নববধুকে হত্যার অভিযোগে স্বামী ও ভাবী আটক সিলেট কিনব্রিজের নিচে সাইনবোর্ডে ঝুলন্ত যুবকের লাশ! শ্রীমঙ্গলে জগদ্বন্ধু আশ্রমের উদ্বোধন লক্ষাধিক পূণ্যার্থীর আগমন মৌলভীবাজারে ডিবি পুলিশের অভিযানে ইয়াবাসহ আটক ১ শ্রীমঙ্গলে শ্রী শ্রী প্রভু জগদ্বন্ধু আশ্রমের দ্বারোদঘাটন উৎসব, নগর সংকীর্তন ও শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত
সিলেটে কে হচ্ছে নগর পিতা, এড. মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ না আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী

সিলেটে কে হচ্ছে নগর পিতা, এড. মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ না আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী

এ এ রানা::;
প্রতিদ্বন্দ্বিতার লড়াইয়ে এবার প্রকাশ্যে মাঠে নেমে পড়েছেন আওয়ামী লীগের দুই নেতা। আসন্ন সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে নির্বাচিত হয়ে নগর ভবনের কর্তৃত্ব নিতে নৌকার মনোনয়ন প্রাপ্তির লড়াই এতদিন ছিল নিরবে নিবৃত্তে। যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী সম্ভাব্য মেয়র প্রার্থী হিসেবে নিজেকে প্রায় নিশ্চিত করে আটঘাট বেঁধে মাঠে নেমেছেন।মনোনয়ন পূর্ব জোর প্রচারণা চালাচ্ছেন। দলীয় নেতা থেকে শুরু করে ধর্মীয় নেতা, পেশাজীবী নেতা, সমাজপতি সহ শুভাকাঙ্খিদের দোয়া নিতে নগর পেরিয়ে জেলার বিভিন্ন স্থানে ঘুরে বেড়াচ্ছেন।

মেয়র পদে প্রার্থীতা ঘোষনা প্রসঙ্গে মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ তার বক্তব্যে বলেন, ‘গোটা জীবন আমি রাজনীতি করে কাটিয়ে দিচ্ছি। ছাত্রজীবন থেকে আওয়ামী লীগ, বঙ্গবন্ধু ও শেখ হাসিনার প্রতি আমার আনুগত্য। এর বাইরে আমার কোনো ধারা নেই, পথ নেই। জাতির পিতার হত্যাকারী খন্দকার মোশতাক আহমেদ যখন সিলেটে এসেছিল, তাকে গণপিটুনি দিয়েছিলাম আমার নেতৃত্বে। এজন্য রাষ্ট্রদ্রোহ মামলায় ১৭ মাস কারাগারে ছিলাম। রাজনীতি করতে গিয়ে জিয়াউর রহমান, এরশাদ, খালেদা জিয়া, ওয়ান-ইলেভেন সরকারের আমলেও আমি জেল খেটেছি।’

তিনি বলেন, ‘রাজনীতি হচ্ছে একটি অনুভূতি। এখানে মানুষের জন্য কাজ করার সুযোগ আছে। আমি দীর্ঘদিন ধরে মেয়র পদে নির্বাচন করতে কাজ করে আসছি।’

মেয়র পদে
আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরীকে দেখতে চাই’ এমন পোস্টার ও প্লে-কার্ডে ইতোমধ্যে ছেয়ে গেছে নগরীর সর্বত্র। সেই সাথে অন্য নেতাদেরে মেয়র পদে প্রার্থীতার নিবর গুঞ্জন ছিল। সম্ভাব্য প্রার্থী তালিকায় ছিলেন আওয়ামী লীগের সাবেক কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও সাবেক পিপি এডভোকেট মিছবাহ উদ্দিন সিরাজ, মহানগর আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি আসাদ উদ্দিন আহমদ, সাধারণ সম্পাদক মো. জাকির হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক ও সিলেটের প্রথম মেয়র বদর উদ্দিন আহমদ কামরান তনয় ডা. আরমান আহমদ শিপলু এবং সিসিকের বার বার নির্বাচিত কাউন্সিলর আজাদুর রহমান।

দীর্ঘ দিন থেকে মাঠে সরব থাকা এসব মনোনয়ন প্রত্যাশীদের মধ্যে এবার প্রকাশ্যে প্রতিদ্বন্দ্বিতার ঘোষনা দিয়েছেন এডভোকেট মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ। তিনি বৃহস্পতিবার সিলেট জেলা কর আইনজীবী পরিষদের প্রাক বাজেট অনুষ্ঠানে প্রকাশ্যে নিজের প্রার্থীতা ঘোষনা দিয়ে জানান, আগামী সিসিক নির্বাচনে নৌকা প্রতীক নিয়ে তিনি মেয়র পদে নির্বাচন করতে চান। তিনি দলীয় মনোনয়ণ চাইবেন। এ মর্মে তিনি বৃহস্পতিবার সংবাদ মাধ্যমে নিজ নামে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিও প্রেরণ করেছেন।

সংশ্লিষ্টরা জানান, মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ দীর্ঘদিন ধরে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীক নিয়ে নির্বাচনে লড়তে তৎপর রয়েছেন। এ লক্ষ্যে মহানগরীতে কাজ করছেন তিনি। তবে সবার কাছে দোয়া চাইলেও প্রকাশ্যে মেয়র পদে প্রার্থী হওয়ার কথা বলেননি এতদিন।

প্রার্থী হওয়ার ঘোষণা দিলেও চূড়ান্ত সিদ্ধান্তের ভার দলীয় সভানেত্রী শেখ হাসিনার ওপর ছেড়ে দিয়ে মিসবাহ সিরাজ বলেন, ‘দলীয় সভানেত্রী যে সিদ্ধান্ত দেবে, সেটাই চূড়ান্ত।’

এদিকে, এডভোকেট মিসছবাহ উদ্দিন সিরাজ-এর প্রার্থীতা ঘোষনার মধ্য দিয়ে আসন্ন সিসিক মেয়র নির্বচনকে কেন্দ্র করে সিলেটে আওয়ামী পরিবারের দীর্ঘদিনের ঠান্ডা লড়াই এখন উষ্ণতায় রূপ নিতে শুরু করেছে।

নির্বাচনে আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরীর চুড়ান্ত প্রার্থীতা নিয়ে নেতাকর্মীদের মধ্যে ধূম্রজালের সৃষ্টি হয়েছে। নেতাকর্মীরা কোনো একক প্রার্থী নিয়ে নির্বাচনপূর্ব মাঠে কাজ করার উৎসাহ-উদ্বীপনা হারিয়ে ফেলছেন বলে ধারনা করছেন দলটির তৃণমূলের কর্মীরা।

সংবাদটি শেয়ার করুন :





© All rights reserved © 2021 Holysylhet