সংবাদ শিরোনাম :
কুলাউড়ায় পানিতে ডুবে ২ শিশুর মৃত্যু শাহপরাণ থানার পুলিশের অভিযানে ট্রাকে থাকা পাথরের নিচ থেকে ২০০ বস্তা চিনি সহ আটক:২ রাজনগরে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় ছেলের পর মারা গেলেন বাবাও পবিত্র ঈদ-উল-আযহা-উদযাপন উপলক্ষ্যে এসএমপি পুলিশের সার্বিক আইন-শৃঙ্খলা নিরাপত্তা এবং ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা সংক্রান্ত সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত শ্রীমঙ্গলে ভূমি সপ্তাহ উপলক্ষে ১৪৭ জন গৃহ ও ভূমি প্রাপ্ত উপকারভোগীদের মাঝে খতিয়ান হস্তান্তর মৌলভীবাজারে মেয়াদ উত্তীর্ণ ঔষুধ সংরক্ষসহ বিভিন্ন অনিয়মে ভোক্তার জরিমানা মৌলভীবাজারে বহুদলীয় প্লাটফর্ম পিস ফ্যাসিলিটেটর গ্রুপের কমিটি গঠন ছাতকে ভারতীয় চিনি বোঝাই ট্রাক সহ আটক ১ ছাতকে ভূমিহীন-গৃহহীন ৬৮টি পরিবার পেয়েছে প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর ছাতক পৌরসভায় টিএলসিসি’র বিশেষ সভা অনুষ্ঠিত
মৌলভীবাজারে মিলেছে দেশের অন্যতমও ছোট একটি মসজিদের সন্ধান

মৌলভীবাজারে মিলেছে দেশের অন্যতমও ছোট একটি মসজিদের সন্ধান

প্রতিবেদন,হলিসিলেট ডটকম ডেস্ক:
মৌলভীবাজারে প্রায় ২০০ বছরের পুরাতন দেশের অন্যতমও একটি ছোট মসজিদের সন্ধান পাওয়া গেছে। ধারণা করা হচ্ছে মসজিদটি ২০০ বছর আগের গৌড় জনপদের মধ্যযুগের স্থাপনা। তবে কে এই মসজিদটি নির্মাণ করেছেন,তার সঠিক কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি। মসজিদটির অবস্থান মৌলভীবাজার জেলার রাজনগর উপজেলার ব্রাহ্মণগাঁও এলাকার কাজীখন্দকার মাজারের পাশে। এলাকাবাসী জানিয়েছেন, চুন, সুরকি ও ইটের তৈরি প্রায় ২০০ বছরের পুরোনো এক গম্বুজবিশিষ্ট এ মসজিদের ভেতরে রয়েছে একটিমাত্র কক্ষ। একসঙ্গে নামাজ আদায় করতে পারতেন ইমামসহ পাঁচজন। ভেতরে জায়গা রয়েছে মাত্র ছয় ফুট। বিভিন্ন সময় সংস্কার করানোর ফলে এখনো মসজিদটির সৌন্দর্য বহাল রয়েছে। তবে এখন আর নামাজ আদায় করা হয় না এই মসজিদে। প্রায় ২০০ বছর আগে ওই এলাকার মাটির নিচে কিছু ইট পাওয়া গিয়েছিল। ইটের পাশেই ছোট এই মসজিদটির অবস্থান ছিল। টিলার ওপরে অবস্থান হওয়ায় প্রথম দেখে বুঝার উপায় নেই এটি মসজিদ। তবে উপরিভাগের গম্বুজ জানান দিচ্ছে এটি আসলে একটি মসজিদ। ব্রাহ্মণগাঁও কাজীখন্দকার মাজারের পাশে অবস্থিত কালের সাক্ষী এই নিদর্শনটি এলাকায় ‘গায়েবি মসজিদ’ নামে পরিচিত। তবে প্রতœতত্ত্ব অধিদপ্তরে তালিকায় নেই মসজিদটি। স্থানীয় অনেকেই জানান, তাদের পূর্বপুরুষরা বলে গেছেন, এলাকাটি একসময় গভীর অরণ্য ছিল। জমিদারি প্রথা বিলুপ্তির পর জঙ্গল কেটে আবাদি জমি তৈরির সময় মাটির নিচে এই মসজিদ পাওয়া যায়। এর পর সেটি সংস্কার করা হয়। কে কখন এটি নির্মাণ করেছেন তার সঠিক কোনো তথ্য জানা যায়নি। তবে এটা প্রাচীন স্থাপত্য। আলাপকালে মাজার কমিটির সাধারণ সম্পাদক আহমদ আলী বলেন, ধারণা করা হয় মসজিদটি গৌড় জনপদের মধ্যযুগের স্থাপনা। তখন এই অঞ্চলে মুসলিমদের সংখ্যা কম ছিল।

সংবাদটি শেয়ার করুন :





© All rights reserved © 2021 Holysylhet